বাংলাদেশের প্রথম কম্পিউটার এবং এখানে আসার পেছনের মানুষটি

শেয়ার করে আমাদের পাশে থাকুন ।

 

ICT

বাংলাদেশের প্রথম কম্পিউটার এবং এখানে আসার পেছনের মানুষটি

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক প্রযুক্তি জায়ান্ট ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস মেশিন কর্পোরেশন (আইবিএম) একটি ১২০ মডেলের মেইনফ্রেম কম্পিউটার করাচিতে পাকিস্তান সরকারের কাছে উপহার হিসাবে প্রেরণ করে, মেইনফ্রেম কম্পিউটারটি তারা প্রাথমিকভাবে এটি পাকিস্তান পারমাণবিক শক্তি কমিশনের লাহোর অফিসে স্থাপনের পরিকল্পনা করেছিল।
তবে পশ্চিম পাকিস্তানের আইবিএম ১৬২০ অপারেটরটির জন্য পিএইসি-র অনুসন্ধান ব্যর্থ হয়। পুরো পাকিস্তানের একাকী ব্যক্তি যিনি মেইনফ্রেম কম্পিউটারের প্রশিক্ষণ নিয়েছিলেন

মোঃ হানিফউদ্দিন মিয়া
নামে এক বাঙালি ঢাকায় থাকতেন।

তৎকালীন হানিফউদ্দিন চেকোস্লোভাক একাডেমি অফ সায়েন্সেস থেকে অ্যানালগ কম্পিউটিং কৌশল এবং ডিজিটাল কম্পিউটার প্রোগ্রামিংয়ের বিষয়ে প্রশিক্ষণ শেষ করেছিলেন।

পিএইসি তাকে লাহোর অফিসে লোভনীয় চাকুরীর প্রস্তাব দিয়েছিল। তবে গৃহ-অসুস্থ এবং বাংলাদেশ সমর্থক হানিফউদ্দিন এই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে বলেছিলেন যে তিনি তার দেশ ছাড়বেন না।
তাঁর অবস্থান ছিল তিহাসিক।
তার অস্বীকৃতির কারণে পিএইসি কম্পিউটার ঢাকায় পাঠাতে বাধ্য হয়েছিল।
এই জমিতে কম্পিউটার চালু করার ক্ষেত্রে এটি একটি মাইলফলক ছিল,

‘ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার বলেছেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী কেন্দ্র সংলগ্ন পিএইসি ঢাকা কেন্দ্রে আইবিএম ১৬২০ স্থাপনের পরে, হানিফুদ্দিনকে দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে এটি দ্বিতীয় ধরণের মেশিন টি পরিচালনার জন্য নিয়োগ করা হয়েছিল।

বাংলাদেশে প্রথম প্রতিষ্ঠার পরে ডেটা অ্যানালাইজিং মেশিনটি মূলত কয়েকটি ঢাকা-ভিত্তিক গবেষক ব্যবহার করতেন।


শেয়ার করে আমাদের পাশে থাকুন ।

Leave a Reply